সকালের ব্রেকফাস্ট এ আলু পরোটা খেয়ে খেয়ে ক্লান্তু? মুলো দিয়ে পরোটা বানিয়ে ফেলুন আঙ্গুল চাটবেন বাড়ির সবাই

মুলার পরোটা শুনলেই অনেকের মুখে জল চলে আসে। শীতের মৌসুমে মুলার পরোটা খুব পছন্দের।  মুলার পরোটাও প্রায়ই সকালের নাস্তায় তৈরি করা হয়। শীতকালে যে মুলা আসে তা পেটের জন্য খুবই উপকারী। মূলার পরোটা হজমশক্তি ভালো রাখতেও সাহায্য করে। তাছাড়া, হার্টকে ভাল রাখে, ওজন কমায়, শ্বাস প্রশ্বাসের সমস্যা দূর, ডায়াবেটিস রোধ করে, ক্যান্সার রোধ করে। বাড়িতে প্রায়শই সকালের নাস্তায় পরোঠা তৈরি করা হয়, এমন পরিস্থিতিতে শীতে মূলা পরাঠার রেসিপি ট্রাই করা যেতে পারে। স্বাদ ও পুষ্টিতে ভরপুর মুলার পরোটা তৈরি করাও খুব সহজ। কম সময়ে তৈরি করা যায় এমন একটি রেসিপি হল মূলার পরোটা। মুলার পরোটা বাচ্চাদের টিফিনের জন্যও একটি নিখুঁত খাবার হতে পারে। আপনি যদি এখন পর্যন্ত মূলার পরাঠা তৈরি না করে থাকেন তবে আমাদের উল্লেখিত রেসিপির সাহায্যে আপনি এটি সহজেই তৈরি করতে পারেন।

কি কি লাগবে মুলো পরোটা বানাতে

  • কুচোনো মুলো – ২ কাপ
  • দেশি ঘি/তেল- পরিমানমত
  • গমের আটা – ৩-৪ কাপ
  • গুঁড়ো লাল লঙ্কা – হাফ চা চামচ
  • সবুজ ধনেপাতা – ৩-৪ চামচ
  • কুচোনো আদা – ১ চা চামচ
  • নুন – স্বাদ অনুসারে
  • হিং- এক চিমটি
  • কুচোনো কাঁচা লঙ্কা- ২টি
  • গুঁড়ো ভাজা জিরে – 1/4 চা চামচ

কি কি বানাতে পারবেন মুলো পরোটা

স্টেপ ১। যদি মুলার পরোটা বানাতে চাইলে সকালের ব্রেকফাস্টএ তাহলে মুলো থেকে পাতাগুলো ভেঙ্গে নিয়ে মুলো জলে ধুয়ে পরিষ্কার করে নিয়ে বেটে নিন। এরপর কাঁচা লঙ্কা ও সবুজ ধনেপাতা সুক্ষ করে কেটে ফেলুন।

স্টেপ ২। গমের আটা একটি বড় বাটিতে ছেঁকে নিন ও তাতে কিছুটা দেশি ঘি ও এক চিমটি নুন দিয়ে বেশ করে মিশিয়ে ফেলুন। এরমধ্যে অল্প অল্প পরিমানে জল যোগ করতে করতে আটা ভাল করে মেখে নিন। মনে রাখবেন আটা মাখাতে হবে পরোটার তৈরি করার জন্য।

স্টেপ ৩।৯-১২ মিনিটের জন্য আটা সুতির একটি ভেজা কাপড় দিয়ে ঢেকে একপাশে রাখুন। এদিকে কুচোনো মুলোগুলো নিয়ে তার থেকে ভালো করে ছেঁকে জল ঝরিয়ে ফেলুন।

স্টেপ ৪। এবার মুলাকে একটি পাত্রে রেখে তারমধ্যে সবুজ ধনে, গুঁড়ো ভাজা জিরে, গুঁড়ো লাল লঙ্কা, হিং, আদা ও কাঁচালঙ্কা দিয়ে মিশিয়ে নিন। অর্ধেক চিমটি নুন এরপর এর মধ্যে যোগ করুন। এখন পরোটা বানাবার জন্য পুর বা স্টাফিং তৈরি হয়ে গেল।

স্টেপ ৫। গ্যাসের ওপর একটি ননস্টিক প্যান কে রেখে মাঝারি আঁচে প্যান কে গরম করে নিন। এদিকে, আটার থেকে সমান অনুপাতে আটা কে ভাগ করে নিয়ে নিয়ে ছোট ছোট সাইজএর আটার বল তৈরি ফেলুন। একটা আটার লেচি নিয়ে গোল করে বেলে নিন। মূলার পুর মাঝখানে রেখে চারপাশে বন্ধ করে দিয়ে আবার আটার লেচিকে বেলে নিন।

স্টেপ ৬। সামান্য ঘি  এরপর কড়াইতে লাগিয়ে ছড়িয়ে দিন কড়াই এর চারদিকে  ও বেলে রাখা পরোটাকে কড়াইতে দিয়ে সেঁকুন।যতক্ষণ না অব্দি পরোটা সোনালি ও ক্রিস্পি হচ্ছে উভয়দিক থেকে ততক্ষন পর্যন্ত ভাজতে থাকুন, ভাজা হয়ে গেলে পরোটাগুলোকে একটি প্লেটে তুলে রাখুন। একইভাবে সব আটার লেচি গুলি বেলে নিয়ে পরোটা তৈরি করে নিন।

স্টেপ ৭। প্রস্তুত চাটনি বা সসের সকালের ব্রেকফাস্ট এ স্বাস্থ্যকর মূলার পরোটা খেতে দিন।

আশা করি কিভাবে মুলো পরোটা তৈরি করা যায় সে সম্পর্কে আমার এই রান্না করার পদ্ধতিটি আপনাদের সবার ভালো লেগেছে। আমার পাঠকদের কাছে রেসিপিটির প্রতিটি দিক সম্পর্কে সম্পূর্ণ তথ্য প্রদান করার জন্য সবসময়ই চেষ্টা করে থাকি। আপনি কিভাবে মুলো পরোটা রান্নাটি তৈরি করতে পারবেন সে বিষয়ে সম্পূর্ণ তথ্য পেতে পারেন ও বাড়িতে দোকানের মতই সুস্বাদু মুলো পরোটা তৈরি করে সবাইকে খাওয়াতে পারেন। রেসিপিটি পড়ার জন্য ধন্যবাদ।

Leave a Comment